রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৭:২৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কামারখন্দে ক্ষীরা চাষে কৃষকের হাসি

কামারখন্দে ক্ষীরা চাষে কৃষকের হাসি

সময় বাংলাদেশ ডেস্কঃ  

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার বাড়াকান্দি গ্রামের একজন আদর্শ কৃষক মোঃ আলতাফ হোসেন (৩৩) এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়েই তার সংসার।

আলতাফ হোসেন অন্যান্য ফসল আবাদ করে তেমন লাভবান না হলেও কৃষি অফিসারের পরামর্শ অনুযায়ী পৈত্রিক ৪০ শতাংশ জমিতে গত ৫ বছর ধরে ক্ষীরা চাষ করে আসছেন। তার উৎপাদিত ক্ষীরা চাষ করে বিক্রি করে ইতোমধ্যে ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে।

আলতাফ হোসেন জানান, আমি অন্যান্য কৃষকের মতোই ধানের মতো সাধারণ ফসল চাষ করতাম। কিন্তু অন্য ফসল চাষের চেয়ে ক্ষীরা চাষ করলে প্রায় তিন গুণ বেশি লাভ হয়। ৪০ শতাংশ ক্ষেতে ধান চাষ করলে খরচ হতো প্রায় ১০ হাজার টাকা। ধান পেতাম প্রায় ২৫-২৭ মণ, বর্তমান ধানের বাজার ৬০০ টাকা মূল্য অনুযায়ী ১৫ হাজার বিক্রয় করতাম, তাহলে সব খরচ বাদ দিয়ে ধানে লাভ হতো প্রায় ৫-৭ হাজার টাকা।

কিন্তু ৪০ শতাংশ জমিতে ক্ষীরা চাষ করে খরচ হয়ে প্রায় ১৩ হাজার টাকা ইতোমধ্যে ৪০ হাজার টাকার ক্ষিরা বিক্রয় করেছি আরও বৃষ্টিতে ৪-৫হাজার ক্ষীরা নষ্ট হয়েছে তার পরেও আরও ৩-৫ হাজার টাকার ক্ষীরা বিক্রয় করতে পারবো তাহলে সব ধরনের খরচ বাদ দিয়ে ২৮ থেকে ৩০ হাজার টাকা লাভ হচ্ছে। আর ক্ষীরা চাষ করে আমার ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে, আগে ছেলে মেয়ের পড়শোনার খরচসহ বিভিন্ন নানান কষ্ট করে চলতে হতো কিন্তু এখন আর সেই কষ্টটা আগের মতো নেই।

এ ব্যাপারে কামারখন্দের উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার সাদাত জানান, ক্ষীরা চাষ অবশ্যই অন্য ফসলের চেয়ে তিনগুন লাভ ,অন্য ফসলের পাশাপাশি ক্ষীরা চাষ করে কামারখন্দ উপজেলার অনেক কৃষক লাভবান হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে আগামী দিনের এর চাষ আরও বাড়বে এছাড়া কৃষকরা কৃষি বিষয়ক সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতা আমাদের কাছ থেকে পাবে।





© All rights reserved © 2018 somoybangladesh24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com