রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শাহজাদপুরে এমপির বিরুদ্ধে আদালতে চাঁদাবাজি ও ভাংচুরের অভিযোগ

শাহজাদপুরে এমপির বিরুদ্ধে আদালতে চাঁদাবাজি ও ভাংচুরের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চাঁদা না দেয়ায় ব্যক্তিগত অফিসে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনের সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপনসহ অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ দায়ের করেছেন একই দলের এক নেতা।
বৃহস্পতিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ দ্রæত বিচার আদালতে শাহজাদপুর উপজেলার রুপবাটি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন সরকার বাদী হয়ে অভিযোগটি দায়ের করেন। অভিযোগে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও এমপি হাসিবুর রহমান স্বপনকে প্রধান আসামী করা হয়েছে।

এছাড়াও অভিযোগে উপজেলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সালাম ব্যাপারী, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আশিকুল হক দিনার, পৌর যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক আব্দুল্লাহ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক আল-আমিন, উপজেলা যুবলীগের সদস্য আল-আমিন, পৌর যুবলীগের সদস্য আলা উদ্দিন, রুপবাটি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি কামরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা দিনারের ছোট ভাই অনিকসহ ১২ জনের নাম রয়েছে। এবং অজ্ঞাতনামা আরো ১৫/২০জনকে আসামি করা হয়েছে।
বাদীর আইনজীবি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম সরকার জানান, দ্রæত বিচার আদালতে অভিযোগটি দায়ের করা হয়। ওই আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. হাবিবুর রহমান বাদীর বয়ান শুনে লিপিবন্ধ করেছেন। বিষয়টি আদেশের অপেক্ষায় রয়েছে।

অভিযোগের বরাত দিয়ে তিনি আরো জানান, এমপি হাসিবুর রহমান স্বপন বিভিন্ন সময়ে বাদীর কাছ থেকে বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ পাইয়ে দেয়ার নামে এক কোটি ৯৩ লাখ টাকা নিয়েছেন।

এ বিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি/সম্পাদক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দেন বাদী। অভিযোগের অনুলিপি কেন্দীয় আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ন সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও দুর্নীতি দমন কমিশনেও দেয়া হয়েছে।

এরপরও এমপি স্বপন বাদী আবুল হোসেন সরকারের কাছে এক কোটি টাকা চাঁদা দাবি করেন। দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় গত ১৯ নভেম্বর বিকেলে এমপি স্বপনের নেতৃত্বে দিনারসহ অন্যান্য আসামিরা পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে বাঘাবাড়ি এলাকায় বাদীর অফিসে হামলা ও ভাংচুর চালায়। এ সময় তারা আলমিরা ভেঙ্গে ১০ লাখ টাকা লুট করে এবং বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও ড. মাজহারুল ইসলামের ছবি ভাংচুর করে বাদীর অফিসে তালা লাগিয়ে দেয়ার হয়েছে অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে এমপি হাসিবুর রহমান স্বপন মুঠোফোনে বলেন, আমি দলের এমপি ও সভাপতি। অস্ত্র হাতে নিয়ে নিজ দলেরই অফিস ভাঙবো-এটা পাগলও বিশ্বাস করবে না। অভিযোগকারী আবুল হোসেন একজন এবনারমাল লোক। কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়ে সে আদালতে আমার ও দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। আমি বিশ্বাস করি আদালত সত্য মিথ্যা যাচাই বাছাই করেই অভিযোগটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

দলের কাছে করা অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, একই ব্যক্তি দলের বিভিন্ন ফোরামে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে। তাদের কাছে অভিযোগ প্রমাণিত হলে দল যে সিদ্ধান্ত নিবে আমি তাই মেনে নেব।





© All rights reserved © 2018 somoybangladesh24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com