সোমবার, ১৩ Jul ২০২০, ০৭:৩১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কামারখন্দে কলা চাষে ঝুঁকছেন কৃষক, বাম্পার ফলন হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি কামারখন্দে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ ২০ কোটি টাকার বিল খতিয়ে দেখা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় ৩০ জনের মরদেহ উদ্ধার এহিয়া খান মজলিশ এর মৃত্যুতে আমিরুল ইসলাম খান আলীমের শোক প্রকাশ সাবেক সংসদ সদস্য ইয়াহিয়া খান মজলিসের মৃত্যুতে এ্যাড: সিমকী ইমাম খানের শোকবার্তা বিপদসীমা অতিক্রম করেছে যমুনা নদীর পানি: ভয়াবহ বন্যার আশঙ্কা কামারখন্দে যৌতুকের জন্য গৃহবধুকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগে মামলা কামারখন্দে টাকার লোভ দেখিয়ে ৭ বছরের শিশু ধর্ষণ যুবক আটক মাল্টায় আ.লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
ঘুরে আসুন ফয়’স লেক

ঘুরে আসুন ফয়’স লেক

ফাইল ছবি

চট্টগ্রামের ফয়’স লেকের নাম শোনেননি এমন মানুষ পাওয়া যাবে না নিশ্চয়ই। তবে ঘুরে দেখেছেন কি সবাই? হয়তো সবাই যেতে পারেননি। তাই সময় করে একবার ঘুরে আসুন ফয়’স লেক থেকে। জানা এবং দেখার সমন্বয়ে দারুণ অনুভূতি সৃষ্টি হবে আপনার।

নামকরণ
ফয়’স লেক কোনো প্রাকৃতিক হ্রদ নয়। ১৯২৪ সালে আসাম বেঙ্গল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে খনন করা হয়। তখন এটি ‘পাহাড়তলি লেক’ নামে পরিচিত ছিল। পরে প্রকৌশলী মি. ফয়’র নামানুসারে ‘ফয়’স লেক’ রাখা হয়।

 

অবস্থান
লেকটি চট্টগ্রামের পাহাড়তলি রেলস্টেশনের অদূরে খুলশি এলাকায় অবস্থিত। ৩৩৬ একর জমির ওপর নির্মিত হ্রদটি পাহাড়ের একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তের মধ্যবর্তী একটি সরু উপত্যকায় আড়াআড়িভাবে বাঁধ নির্মাণের মাধ্যমে সৃষ্ট।

বৈশিষ্ট্য
এখানে শিশুদের জন্য রাইডের ব্যবস্থা রয়েছে। বড়দের জন্য রয়েছে পাহাড় ও হ্রদের মনোমুগ্ধকর পরিবেশ। রয়েছে অরুণাময়ী, গোধূলি, আকাশমণি, মন্দাকিনী, দক্ষিণী এবং অলকানন্দা নামের হ্রদ। হ্রদের পাড়ে সারি সারি নৌকা। থাকার জন্য বিভিন্ন রিসোর্ট রয়েছে।

 

প্রবেশ মূল্য
ফয়’স লেকে প্রাপ্তবয়স্কদের প্রবেশ মূল্য ২০০ টাকা। আর প্রতি শিশু ১৮০ টাকা। তবে তিন ফুটের কম উচ্চতার শিশুদের জন্য ফ্রি।

খোলা
রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা। এছাড়া শুক্রবার ও শনিবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

 

যেভাবে যাবেন
দেশের যেকোন অঞ্চল থেকে সড়ক, নৌ বা রেলপথে চট্টগ্রাম শহরে চলে আসুন। এরপর চট্টগ্রাম শহরের জিইসি মোড় থেকে সিএনজি বা রিক্শায় যাওয়া যায়। শহর থেকে রিকশা পেতে খুব বেগ পেতে হয় না।

যেখানে থাকবেন
হোটেল আগ্রাবাদে থাকতে পারেন। এছাড়া অনেক হোটেল ও রিসোর্ট রয়েছে। লেকের গেটেও রিসোর্টের ব্যবস্থা রয়েছে।





© All rights reserved © 2018 somoybangladesh24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com