রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জ – ১ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করলেন রানা সিরাজগঞ্জ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র প্রণোদনা প্যাকেজের বিজ্ঞপ্তি কামারখন্দে ফাযিল (স্নাতক ) মাদরাসার বহুতল ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধন বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত মসজিদে অক্ষত কোরআন শরীফ শুধু গ্যাস লিকেজ থেকে এতো বড় দুর্ঘটনা হওয়া সম্ভব নয়: শামীম ওসমান মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় আহতদের সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর এসি বিস্ফোরণে ঘটনায় দগ্ধদের খবর নিতে উদ্বিগ্ন স্বজনেরা ভারত ও চীনের উত্তেজনা কামারখন্দে নবাগত ইউএনও সাথে মতবিনিয়ম সভা কামারখন্দে ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটির পরিচিতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ভারত ও চীনের উত্তেজনা

ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক:

ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ছে। উভয় দেশই নিজ নিজ সীমান্তে অনুপ্রবেশের অভিযোগ করছে। এর আগে লাদাখে চীনা হামলায় ২০ ভারতীয় সৈন্য নিহতের পর থেকে উত্তেজনা বাড়ছে। এর জেরে প্রয়োজনে সামরিক শক্তি ব্যবহারের হুমকি দিয়েছে ভারত। সেভাবেই দেশটির সেনাবাহিনীকে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

প্রায় চার দশকের মধ্যে প্রথমবার কয়েক মাস আগেই লাদাখ সীমান্তে রক্তক্ষয়ী সহিংসতায় জড়িয়েছিল চীন ও ভারত। এর মধ্যে বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা আর নাটকীয়তার পর চলতি সপ্তাহে আবারও বিরোধ বেধেছে দুই দেশের মধ্যে। উভয়পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে সীমান্তে অনুপ্রবেশের অভিযোগ তুলেছে। ফলে ফের উত্তপ্ত লাদাখ সীমান্তের চূড়ান্ত নিয়ন্ত্রণরেখার (এলএসি) পার্শ্ববর্তী এলাকা।

এদিকে , শুক্রবার ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে সেনাবাহিনীর প্রস্তুতি সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেন ‘প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (এলএসি) উত্তেজনা রয়েছে। সে কারণে সতর্কতামূলক সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।’

ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ , ‘আমরা নিশ্চিত যে আলোচনার মাধ্যমেই নিয়ন্ত্রণ রেখার উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সমাধান সম্ভব।’ তবে ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নিয়ন্ত্রণ রেখায় সম্ভাব্য চীনা হামলা ঠেকাতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রস্তুতির খতিয়ে দেখেছেন।

এদিকে চীনের পক্ষ থেকে নিয়ন্ত্রণ রেখায় সীমা লঙ্ঘনের অভিযোগ করা হয়েছে। তবে সেই সঙ্গে ভারতীয় সেনাপ্রধান খারিজ করেছেন।

গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকার এ চীনা ফৌজের সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়। এ সময় চীনা সৈন্যও হতাহত হয়। প্যাংগংয়ের দক্ষিণে নতুন করে উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে দুই দেশের পক্ষ থেকে ব্রিগেডিয়ার স্তরের বৈঠক হলেও তাতে তেমন ‘অগ্রগতি’ হয়নি বলে সেনাবাহিনীর একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

সময় বাংলাদেশ/এমআর

 





© All rights reserved © 2018 somoybangladesh24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com